Full width home advertisement

বাছাই খবর

প্রযুক্তি পরামর্শ

অ্যাপস

Post Page Advertisement [Top]

হারিয়ে ফেলা আত্মবিশ্বাস করুন পুনরুদ্ধার

হারিয়ে ফেলা আত্মবিশ্বাস করুন পুনরুদ্ধার
মানুষের জীবনের রহস্যময় গুণাবলীর মধ্যে কনফিডেন্স বা আত্মবিশ্বাস অন্যতম। প্রত্যেক মানুষই চায় আত্মবিশ্বাসী হতে, তবে আত্মবিশ্বাস বলতে কী বোঝায় তা ক’জন বোঝে? আত্মবিশ্বাসকে সংজ্ঞায়িত করা যায় সাহসের একটি অংশ হিসেবে যা একজন মানুষকে তার লক্ষ্যে পৌঁছাতে সাহায্য করে, নিজের প্রতি নিজের আস্থা তৈরি করে। 
একজন আত্মবিশ্বাসী মানুষ বেশ সহজেই সফলতার শীর্ষে পৌঁছাতে পারেন। অনায়াসে পার করতে পারেন জীবনের যে কোনো পরিস্থিতি। আবার অন্যদিকে আত্মবিশ্বাস হারিয়ে গেলে একজন মানুষ হয়ে যায় অসহায়। খুব সহজ পরিস্থিতিও তখন তার জীবনে জটিল হয়ে ধরা হয়। 
জীবনে খারাপ সময় সবারই আসে। আর তখন কমে যায় আত্মবিশ্বাস। নিজেকে কিছু প্রশ্ন করার মাধ্যমে বা নিজের সঙ্গে কিছুটা সময় কাটানোর মাধ্যমে আপনি চাইলে নিজের হারিয়ে ফেলা আত্মবিশ্বাস আবারও পুনরুদ্ধার করতে পারেন। চলুন তবে এমন কিছু বিষয় নিয়েই আলোচনা করা যাক- 
১।  নিজেকে প্রশ্ন করুন, আপনি কি কখনই সফল হননি? জীবনে এমন কোনও না কোনও সময় নিশ্চয়ই ছিল যখন আপনার আত্মবিশ্বাসই আপনাকে জয়ী করেছিল। সেই সময়গুলোর স্মৃতিচারণ করুন, নতুন পরিস্থিতিও ঠিক সামলে নিতে পারবেন। 
২। আপনার কি কোনো রোল মডেল বা আদর্শ ব্যক্তি রয়েছে? এমন কেউ যিনি নিজের যোগ্যতা আর আত্মবিশ্বাসের জোরে যে কোনো পরিস্থিতি সামলাতে পারেন। যার মধ্যে নেই কোনো অহঙ্কার বা বিরক্তিভাব। তবে তার যে গুণগুলো আপনাকে মুগ্ধ করে তা লিপিবদ্ধ করুন। এই গুণগুলো নিজে অনুকরণের চেষ্টা করুন। 
৩। জীবনে কখনও কি চ্যালেঞ্জ নিয়ে কোনো কাজ করেছিলেন? সে কাজগুলো কাগজে লিখুন, সঙ্গে লিখুন নিজের শক্তি দিয়ে সে চ্যালেঞ্জের সময় পার করে কী শিখলেন জীবনে।
৪। নিজের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করুন। প্রতিদিন নিজের করা ভালো কাজগুলো নিজে ভাবুন, সেই অনুভূতি থেকে শক্তি সঞ্চয় করুন।
৫। আপনার কোনো প্রতিভা রয়েছে, অথচ আপনি ভাবছেন, ‘এ আমার এমন কী’? নিজেকে প্রশ্ন করুন, ‘চেষ্টা করলেই কী সবাই সব পারে?’ যা আপনার প্রতিভা তা হয়ত অনেকে করার চেষ্টা করেও পারছেন না। নিজের মধ্যে সাহস জুগিয়ে নিজেকে উজ্জীবিত করুন। আপনিই পারবেন যে কোনো পরিস্থিতি পার করতে। 
৬। নিজের বর্তমান সময় নিয়ে ভাবুন। একটি কাগজে এমন পাঁচটি জিনিসের নাম লিখুন যা আপনি দেখতে পারছেন, পাঁচটি বিষয় যা আপনি শুনতে পারছেন, তিনটি জিনিস যা আপনি ধরতে পারছেন, দুটো জিনিস যার ঘ্রাণ আপনি নিতে পারছেন, একটি জিনিস যার স্বাদ গ্রহণ করতে পারছেন। দেখুন, কতটা স্বয়ংসম্পূর্ণ আপনি! 
৭। নিজের অতীত জীবনের এমন সময়ের কথা ভাবুন যখন প্রাথমিক পর্যায়ে আপনার অবস্থান ছিল একজন হেরে যাওয়া মানুষের পর্যায়ে। কিন্তু পরবর্তী সময়ে ঠিকই আপনি সে সময় পার করতে পেরেছেন আর ছিনিয়ে নিতে পেরেছেন জয়। 
৮। জীবনের লক্ষ্যে পৌঁছাতে যে মানুষগুলো সবসময় আপনার পাশে ছিল তাদের তালিকা করুন। ব্যাখ্যা করুন কীভাবে তারা আপনাকে সাহস জুগিয়েছে, আপনার ভেতর থেকে সেরাটা খুঁজে বের করেছে। তারা কীভাবে আপনার আত্মবিশ্বাসকে বাড়িয়ে দিয়েছিল বহুগুণ। 
৯। ধরুন পৃথিবীর সব আত্মবিশ্বাস আজকে আপনার হয়ে গেল, কী করবেন? ৬ মাসের জন্য আপনাকে সব আত্মবিশ্বাসের অধিকারি করে দেওয়া হলে কী করবেন? আর যদি তা করা হয় ১ বছরের জন্য তবে? 
১০। নিজেকে অভিনন্দন জানান। কারণ, আপনি একজন জীবনযোদ্ধা। আপনি এখনও টিকে আছেন জয়ী হবেন বলে। নিজেকে নিজেই অনুপ্রেরণা দিন, নতুন লক্ষ্য ঠিক করুন। এবার নতুন উদ্যমে এগিয়ে চলুন আপনার লক্ষ্যের দিকে। এই সপ্তাহে নিজেকে ছোটখাটো একটা চ্যালেঞ্জ দিয়েই ফেলুন। 
১১। এমন কিছু গান কী রয়েছে যা শুনলে আপনি সাহস পান, অনুপ্রেরণা আসে মনে? গানগুলোর তালিকা করে ফেলুন, সকাল শুরু করুন প্রিয় গান শুনে। ইচ্ছে হলে বাথরুম সিঙ্গার হয়ে উঠুন, গলা ছেড়ে গান। জীবন আপনার, সুখী থাকুন।  
১২। মাঝেমাঝে জীবনে ব্রেক আসা মন্দ নয়। এতে নতুন করে জীবনের ছন্দ খুঁজে পাওয়া যায়। অতীতের সাহস আর অর্জনকে সঙ্গী করে নতুন করে পরিস্থিতি মোকাবেলা করুন।
মনে রাখবেন, নিজের জীবনে কেউই শতভাগ সফল নন। এখানে অর্জন যেমন আসবে তেমনি থাকবে কিছু হতাশার গল্প। তবু জীবনে এগিয়ে যেতে হবে আত্মবিশ্বাস নিয়ে। যে কোনো পরিস্থিতি আপনি সামলাতে পারবেন, কারণ আপনার রয়েছে সাহস।
মূল লেখক : বারবারা মার্কওয়ে, পিএইচডি, থেরাপিস্ট অব সাইকোলজি টুডে 

No comments:

Post a Comment

Bottom Ad [Post Page]