Full width home advertisement

বাছাই খবর

প্রযুক্তি পরামর্শ

অ্যাপস

Post Page Advertisement [Top]

‘মি টু’: ‘‌ধর্ষণ নয়, পারস্পরিক সমঝোতা

‘মি টু’: ‘‌ধর্ষণ নয়, পারস্পরিক সমঝোতা
হলিউডের পর এবার বলিউডেও হচ্ছে #মিটু আন্দোলন। এই ইস্যুতে সরব হয়েছেন মুম্বাই ইন্ডাস্ট্রির তারকারা। এর মধ্যে ভারতীয় অভিনেত্রী শিল্পা শিন্ডের মন্তব্য ঝড় তুলেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।
বছর খানেক আগে এই অভিনেত্রী দাবি করেছিলেন, ‘ভাবিজী ঘর পর হ্যঁয়’ ধারাবাহিকের প্রযোজক তাকে যৌন হেনস্থা করেছিলেন। সেই নিয়ে কম জলঘোলা হয়নি টেলিভিশন ইন্ডাস্ট্রি। তার মতে তিনি যৌন হেনস্থার শিকার হয়েছেন। তবে #মিটু আন্দোলন নিয়ে শিল্পার মন্তব্য, ‘ধর্ষণ বলে কিছু হয় না। এই ইন্ডাস্ট্রিতে ধর্ষণের কোনও সংজ্ঞা নেই। যা হয় সবটাই পারস্পরিক সমঝোতাতেই হয়।’
সম্প্রতি একটি সংবাদমাধ্যমের সাক্ষাৎকারে তিনি জানিয়েছেন, ‘এসব বাজে কথা। সিদ্ধান্ত নেওয়ার অধিকার একমাত্র তোমারই রয়েছে। ব্যাপারটা একদমই সাধারণ। তোমার সঙ্গে যদি কিছু ঘটে তাহলে তখনই বলো। সেই মুহূর্তেই দোষীর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াও। পরে এই হেনস্থার কথা বলে কোনও লাভ নেই। হেনস্থার অনেক পরে তুমি যদি নিজের আওয়াজ তোলো তাহলে সেটা অকার্যকর। শুধু শুধু সমালোচনার সৃষ্টি হয়, সবাই গল্প করে, সোশ্যাল মিডিয়ায় এক দুদিনের জন্য হাহাকার হয় তারপর সবাই ভুলে যায়।’
তিনি বলতে থাকেন, ‌‘মানছি আমাদের ইন্ডাস্ট্রি খুব ভালো নয়, কিন্তু এতটাও খারাপ নয়। আর আমি বুঝতে পারছি এত মহিলারা নিজেদের বদনাম কেন করছে? সবাই খারাপ হয় নাকি? এটা হতে পারে? এরম হয় না কখনও। পুরোটাই তোমার উপর নির্ভর করছে। সামনের জন কীভাবে রিঅ্যাক্ট করছে আর তুমি সেটার উত্তর কীভাবে দিচ্ছ। এটা আসলে দেওয়া-নেওয়ার মতো। আর এই ধর্ষণ বলে কিছুই হয় না। তুমি যা চাইবে তোমার সঙ্গে সেটাই হবে। তুমি যদি হেনস্থা হতে না চাও তাহলে সেই জায়গা থেকে সরে দাঁড়াও।’
শিল্পার এই মন্তব্যে ক্ষুব্ধ নেটিজেন। তাদের কথায়, শিল্পা যখন এক-দেড় বছর আগে নিজের যৌন হেনস্থা নিয়ে কথা বলেছিল, তখন তো তিনি একবারও বলেননি যে ধর্ষণ কিংবা জোরজবরদস্তি বলে কিছু হয় না। উনি নিজের এমন মন্তব্যে প্রত্যেকটি মহিলাকে অপমান করেছেন। নিজে একজন মহিলা হয়ে এটা বললেন কী করে। শিল্পার ভক্তদের একাংশও একই প্রশ্ন করেছে শিল্পাকে।

No comments:

Post a Comment

Bottom Ad [Post Page]