Full width home advertisement

বাছাই খবর

প্রযুক্তি পরামর্শ

অ্যাপস

Post Page Advertisement [Top]

হেডফোনের দাম ৩৬ লক্ষ টাকা!

হেডফোনের দাম ৩৬ লক্ষ টাকা!
গান শোনা অথবা ভিডিও দেখার জন্য আপনার সব সময়ের সঙ্গী হেডফোন। আর অবসর হোক বা যাত্রাপথ হেডফোনে গান শুনতে ভালোবাসেন অনেকেই। কারও কাছে হেডফোন যেমন-তেমন হলেই হয়। দাম নিয়ে খুব একটা মাথা ঘামান না তারা। আবার অনেকে আছেন যারা বেশি দামের বিনিময়ে হলেও একটা দামী হেডফোন কিনতে চান। কারণ সুর থেকে শুরু করে মিউজিকের প্রতিটা বিট তাদের জন্য বেশ গুরুত্বপূর্ণ।  
কিন্তু আপনি যত বড় সুরসম্রাজ্ঞীই হোন না কেন ৩৬ লাখ টাকা ব্যয়ে একটা হেডফোন নিশ্চয়ই কিনতে চাইবেন না! আবার শখের বশেই হোক বা ভালো লাগা থেকেই হোক, দামের দিকে না তাকিয়ে কেউ কেউ হয়ত কিনেও ফেলতে পারেন এই দামের হেডফোনটি। আর এই ধরনের গ্রাহকের জন্যই এমন দামে ফেডফোন নিয়ে এলো ‘হাইফাইম্যান ইলেকট্রনিক্স’ (HiFiMan Electronics)। 
মূলত উচ্চ প্রযুক্তির এবং দামি হার্ডওয়্যার তৈরির ক্ষেত্রে এই সংস্থাটি বেশ পরিচিত। ২০০৭ সালে ফাং বিয়ানের তৈরি এই সংস্থাটির প্রোডাক্টগুলো গ্রাহকরা বেশ পছন্দই করেন। বাজারে ন্যানো টেকনোলজিতে বিভিন্ন ধরনের অসাধারণ প্রোডাক্ট রয়েছে তাদের। আর এবার তারা নিয়ে এলো ‘সাংরাই-লা ইলেকট্রোস্ট্যাটিক হেডফোন সিস্টেম’ (Shangri-La Electrostatic Headphone System)। 
এই হেডফোনে ব্যবহার করা হয়েছে একটা আল্ট্রা-থিন ডায়াফ্রাম। যেটি থাকবে দুটি প্যানেলের মাঝে। সেটি টানলেই শোনা যাবে শব্দ। 
সাধারণত ডায়াফ্রামগুলি এক মাইক্রোমিটার মোটা হয়। আর এটির থিকনেস ০ দশমিক ১ মাইক্রোমিটার। এটি এতটাই পাতলা যে পাশের দিক থেকে প্রায়ই দেখাই যাবে না। কোনো বাধা ছাড়াই যেন সাউন্ড ওয়েভ এগিয়ে যায় এমন প্রযুক্তিই ব্যবহার করা হয়েছে এতে।
এটি তৈরি করতে কোম্পানিটির সময় লেগেছে দশ বছর। গত বছর থেকে বাজারে পাওয়া যাচ্ছে এই হেডফোন। 
এটির বাজার মূল্য ৩৫,৯৯,৯০০ টাকা। তবে একবারে না চাইলে মাসে মাসেও পরিশোধ করতে পারেন মূল্য। ইএমআই সিস্টেমে মূল্য পরিশোধের জন্য প্রতি মাসে খরচ পড়বে ৩ লক্ষ ২১ হাজার ৫৩৩ টাকা।

No comments:

Post a Comment

Bottom Ad [Post Page]